Physical Health - শরীর স্বাস্থ্য

হোমিওপ্যাথিতে “অর্শ” রোগের নিরাময়

"hemorrhoids"

আজকের রেস্তোরা ও ফাস্ট ফুড-এর দৌলতে মানুষের বাইরের খাবার খাওয়ার ইচ্ছে ও অভ্যেসের জন্যই পাচনতন্ত্র-এর সমস্যায় আমাদের দেশের মানুষ বেশী আক্রান্ত হচ্ছে এবং তার মধ্যে “অর্শ” একটি অন্যতম সমস্যা।

আমাদের শরীরের বর্জ্য পদার্থ অর্থাৎ মল থাকে Rectum-এ, আর সেখানে কতকগুলি Muscles Ring থাকে যেটার কাজ হচ্ছে আমাদের মলদ্বার-এর ছিদ্রকে বন্ধ রাখা। এই মলদ্বারে যে শিরা-উপশিরাগুলি থাকে সেগুলি কিছু বিশেষ কারণে Infection হয়ে ফুলে ওঠে এবং ব্যথা হয়- তাকেই আমরা “অর্শ” (Piles) বলি।

অর্শ দুই রকমের

বাহ্যিক (External)

আভ্যন্তরিক (Internal)

অর্শের কিছু কারণ

দীর্ঘদিন ধরে কোষ্ঠকাঠিন্য বা আমাশয়, বিনা চিকিৎসায় রাখা।

অনিয়মিত আহার করা।

অতিরিক্ত ঝাল অথবা কড়াপাকের খাবার খাওয়া।

অলস জীবন-যাপন করা।

অতিরিক্ত দৈহিক মেদ জমা।

অতিরিক্ত কাশি বিনা চিকিৎসায় রাখা ।

যে সমস্ত উপসর্গের কথা উপরে উল্লেখ করা হল সেগুলি আরও অনেক কারণে হতে পারে। যেমন- Fissure, Fistula, Rectal Polyp, Rectal Tumour, Rectal Abscess, Enlarged Prostate, Rectal Cancer etc. সুতরাং মলদ্বারে ব্যথা হলে বা ফুলে গেলে অথবা রক্তপাত হলেই যে, সেটা অর্শ এইরকম ভাবার কোন কারণ নেই।

চোখ দিয়ে দেখে পরীক্ষা করে তারপর রোগ নির্ণয় করতে হয়। তাই ধারণার বশবর্তী হয়ে ঔষধ খাওয়া কখনই ঠিক নয়। তাতে চিকিৎসা বিভ্রাট হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

সাবধানতা

আঁশযুক্ত (High Fibre) খাবার খেতে হবে।

কোষ্ঠকাঠিন্য বা আমাশয় থাকলে তার চিকিৎসা করতে হবে।

মলদ্বারের পরিচ্ছন্নতা রক্ষা করতে হবে।

মলত্যাগের সময় বেশী Pressure দেওয়া চলবে না।

নিয়মিত Exercise করতে হবে।

প্রচুর পরিমাণে জল খেতে হবে।

ভারী জিনিস বহন করা চলবে না।

অতিরিক্ত ওজন যাদের তাদের শীঘ্রই ওজন কমাতে হবে।

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Most Popular

To Top