Mental health মনের যত্ন

বাচ্চার প্রথম স্কুল আপনি কি খুব টেনস্ড !

Baby's first school

ছোট্ট ঋকের আজ একদম ভালো লাগছে না। স্কুলে যাবে বলে তার মা তাকে সকাল বেলায় ঘুম থেকে তুলে দিয়েছেন। আবার আজ থেকেই স্কুলে আন্টির কাছে মা তাকে বসিয়ে দিয়ে আসবেন।

কিছুতেই স্কুলের ভেতরে ঢুকবে না। মা তাকে আশ্বস্ত করলেন যে, কোনও ভয় নেই, সে নিশ্চিন্তে স্কুলের ভেতরে থাকবে। তবুও তার কান্না …

প্রথমে বাবা-মা’দের যা মাথায় রাখতে হবে তাহল- এই দু-আড়াই বছর বয়সের বাচ্চারা কি কি পারে, সেদিকে বিশেষ নজর রাখা জরুরি।

কি কি পারে

নিজে নিজে খেতে পারে।

কিছুটা সাহায্য করলে জামাকাপড় পরতে পারে।

লাফাতে, দৌড়াতে বা তিন চাকার সাইকেল চালাতে পারে।

অনুকরণ করতে শেখে বা পারে।

জেদ বা রাগ প্রকাশ করতে পারে।

ভয়, ঈর্ষা এবং বিভিন্ন বিষয়ে কৌতুহল লক্ষ্য করা যায়।

সর্বোপরি ভাষার বিকাশ হয়, তাই অহেতুক অনেক প্রশ্ন করে।

অপরকে সহযোগিতা করা, ভালোবাসতে শেখা, সমবেদনা এবং অপরের সঙ্গে জিনিস ভাগ করাও লক্ষ্য করা যায়।

বিভিন্ন জিনিসের আকার সম্পর্কে ধারণা হয়। তারা শুধুমাত্র দাগ কাটতে পারে, লিখতে পারে না।

ছোট-বড় সবার সঙ্গে খেলতে ভালোবাসে। তাই খেলনা তাদের কাছে প্রিয় জিনিস।

কি করবেন না

জোর করে পড়ানো বা মুখস্থ করানোর চেষ্টা করবেন না।

আপনারাই তো ওর প্রথম এবং প্রধান শিক্ষক। তাই ওদের পড়ানোর দায়িত্ব গৃহশিক্ষকের উপর না চাপিয়ে, নিজেরাই দায়িত্বটা গ্রহণ করুন।

পড়তে বসিয়ে রেখে অন্য কাজ করার থেকে বিরত থাকুন।

বাচ্চার কান্না দেখে, আপনি নিজে কখনোই বাচ্চার স্কুলে বসে থাকবেন না। কারণ, স্কুলের ভেতরের সব দায়িত্ব কিন্তু শিক্ষক এবং স্কুল কর্তৃপক্ষের।

জরুরি তথ্য

বাচ্চার পুষ্টির দিকে নজর রাখবেন। কারণ শরীর খারাপ হলে বাচ্চা মায়ের প্রতি বেশি নির্ভরশীল হয়ে পড়বে। সঙ্গে কান্না বাড়বে এবং স্কুল যাওয়ার প্রতি আগ্রহ কমবে।

স্কুলে যাওয়ার সময় বাচ্চার পকেটে ছোট্ট কাগজে নাম, ঠিকানা এবং সেকশন লিখে রেখে দিন। প্রয়োজনে কাজে লাগবে।

আর সবথেকে বড় কথা এই বয়সেই কিন্তু তাদের মধ্যে প্রতিযোগিতার ইঁদুর দৌড়ে শামিল করবেন না।

আড়াই বা তিন বছর বয়সেই আপনি আপনার বাচ্চার মধ্যে ভবিষ্যতের ইঞ্জিনিয়ার, ডাক্তার, মহাকাশচারী বা বিজ্ঞানী দেখবেন! সুতরাং কোনও প্রতিযোগিতা নয়, শিশুকে বাড়তে দিন তার আপন বিকাশে।

লেখক- ডঃ তন্ময় মিত্র, বিশিষ্ট সায়কোলজিস্ট

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Most Popular

To Top