Mental health মনের যত্ন

অ্যাংজাইটির শিকার, কীভাবে দূর করবেন

সবসময় কি অস্থির লাগে, নিঃশ্বাসের সমস্যায় ভুগছেন ? একটুতেই নার্ভাস হয়ে পড়েন ? এ ধরণের লক্ষণ দেখা দিলে বুঝতে হবে ধীরে ধীরে সেই উদ্বেগ বা দুশ্চিন্তা পরিবারের বা কাছের বন্ধুবান্ধবদের মধ্যে কাছে প্রকাশ করতে না পেরে একাকিত্বের শিকার হয়ে পড়েন অনেকেই ।

অতিরিক্ত উদ্বিগ্নতা কারোর মধ্যে কাজ করলে তা চিন্তার বিষয়। চিকিৎসকরা জানাচ্ছেন, ছোটবেলায় কোনও বিশেষ কিছু থেকে ভয় তৈরি হলে পরবর্তীতে সেটি থেকে অ্যাংজাইটিতে ভুগতে পারেন । যেমন, কোনও বিশেষ পোকামাকড় কিংবা জন্তু জানোয়ার থেকে ভয়, অন্ধকার থেকে ভয়, এসব থেকে গভীর সমস্যা তৈরি হতে পারে ।
অ্যাংজাইটিতে ভোগার লক্ষণ
মন সবসময় খিঁচড়ে থাকা;
• ক্ষণে ক্ষণে মেজাজ হারানো ;
• ভালো করে ঘুমোতে পারে না, ঘুমের ব্যাঘাত হয়, হামেশাই দুঃস্বপ্ন দেখে ঘুম ভেঙে যায়;
• কখনও খিদে থাকে না, কখনও প্রয়োজনের তুলনায় বেশি খিদে ;
• ব্লাড প্রেসার বেড়ে যাওয়া;
• অস্থিরভাব, এক জায়গায় বেশিক্ষণ স্থির হয়ে বসতে না পারা ;
• একটা চাহিদা নিয়ে বারবার এককথা বলা;

কী কী কারণে হয়
কাছের কোনও মানুষকে হারালে, ট্রমার মধ্যে পড়লে যেমন পথ দুর্ঘটনা, মৃত্যু, স্বাস্থ্য-সমস্যা অ্যাংজাইটি বাড়িয়ে দিতে পারে ।
দীর্ঘদিন ধরে দাম্পত্য সমস্যার মুখোমুখি হলে অথবা বিচ্ছেদের আশঙ্কা থাকলে তা অ্যাংজাইটি বাড়িয়ে দিতে পারে ।
কর্মক্ষত্রে বিরাট চাপ উপস্থিত হলে বা কর্মক্ষেত্রে অনিশ্চয়তা তৈরি হলে অথবা বারবার চাকরি পরিবর্তন করলে উদ্বেগের শিকার হতে পারেন ।
উপেক্ষিত হলে ও দুর্ব্যবহার পেলেও উদ্বিগ্নতায় ভোগেন অনেকেই ।

কী ভাবে দূর করবেন
নিজেকে বা যিনি এই রোগের শিকার হয়েছে বলে মনে হচ্ছে তাকে একা হতে দেবেন না ।
এই কাজে অসীম ধৈর্যের প্রয়োজন কারণ রোগীকে ক্রমাগত উৎসাহ যুগিয়ে যেতে হবে যাতে তিনি ভয় বা আতঙ্ক কাটিয়ে উঠতে পারেন।
চিন্তা-ভাবনাকে দুই ভাবে ভাগ করুন, পজিটিভ ও নেগেটিভ। তার পর চেষ্টা করুন একটা একটা করে নেগেটিভ ভাবনাগুলো থেকে বেরিয়ে আসতে। আর উল্টোদিকে যে পজিটিভ ভাবনার তালিকা তৈরি হয়েছে সেগুলোতে আশ্রয় নিন।
প্রয়োজনে কগনিটিভ বিহেভিয়ারাল থেরাপির সাহায্য নিন, এই থেরাপি দিয়ে অ্যাংজাইটি মোকাবিলা করা সহজ হয় ।
কোনও কিছুতেই কাজ না হলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন । তিনিই বলে দেবেন কোন ওষুধ খেলে অ্যাংজাইটি নিয়ন্ত্রণে থাকবে ।

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Most Popular

To Top