Diet - ডায়েট

শরীরের পুষ্টি বজায় রাখতে বীজ খাওয়ার উপকারিতা

শরীরকে সুস্থ ও সবল রাখতে যথাযথ খাবার অত্যন্ত জরুরি।

সেইসঙ্গে এমন কয়েকটি জিনিস খাবারের তালিকায় রাখতে পারলে আখেরে আপনার স্বাস্থ্যেরই উন্নতি ঘটতে পারে।

সাধারণ খাবারের মধ্যে যেসব পুষ্টিগুণ রয়েছে তার থেকে অনেক বেশি রয়েছে ছোট্ট ছোট্ট বীজের মধ্যে।

তবে দেখতে ছোট হলেও এদের কিন্তু উপকারিতা একাধিক।

পুষ্টিবিদদের মতে খাবারের তালিকায় পুষ্টিগুণ বাড়াতে পারে নানা প্রকার বীজ। এমন অনেক বীজ রয়েছে, যা নানাভাবে খাবারের সঙ্গে যোগ করা যায়।

এগুলি আমরা সাধারণত উপেক্ষা করে থাকি। অথচ এতে খাবারের স্বাদ যেমন বাড়বে তেমনি পাওয়া যাবে শারীরিক উপকারিতাও।

যেমন:- ফ্ল্যাক্স বা তিসি, চিয়া বা শিয়া, কুমড়োর বীজ,সেসমি বা তিল,ফেনেল বা মৌরি,সানফ্লাওয়ার বা সূর্যমুখী বীজ।

স্যালাড, স্যুপ, স্মুদিতে মিশিয়ে নিতে পারেন পছন্দের বীজ।

কেবল খাবারের স্বাদ বাড়াতেই নয়, এই বীজগুলোতে রয়েছে দেহের জন্য প্রয়োজনীয় নানা উপকারী পদার্থ, যেমন- প্রোটিন, ফাইবার, আয়রন এবং ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড।

যা ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখে, হার্টকে সুস্থ রাখে আর বাড়িয়ে তোলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা।

দেখে নিন যেসব বীজ অবশ্যই রাখবেন আপনার খাদ্য তালিকায়।

চিয়া বা শিয়া বীজ – পুষ্টিগুণে ভরপুর চিয়া সিডকে বলা হয় সুপার ফুড

ফাইবার, প্রোটিন, ক্যালশিয়াম, ম্যাঙ্গানিজ়, ম্যাগনেশিয়াম, ফসফরাস, ওমেগা থ্রি-ফ্যাটি অ্যাসিড, অ্যান্টি-অক্সিড্যান্টে সমৃদ্ধ শিয়া সিড হার্ট সংক্রান্ত যেকোনো অসুখের আশঙ্কা কমায়।

কারণ ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড ট্রাইগ্লিসারাইডসযুক্ত, এই খাবারটি চর্বি কমিয়ে হৃদপিণ্ডকে ঠিক রাখতে সাহায্য করে।

তিল – গরম ভাত দিয়ে তিল বাটা খেতে ভালোবাসেন এমন অনেক মানুষই আছেন।

এই সাদা তিল পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম, জিঙ্ক ও অ্যান্টি-অক্সিড্যান্ট উপাদানে ভরপুর।

সাদা তিল পাচন ক্রিয়াকে মজবুত রাখে। এছাড়া দাঁত ও হাড়ের দেখভাল করতেও তিলের জুড়ি মেলা ভার।

কুমড়ো বীজ- কুমড়োর বীজ পেপিটাস নামেও পরিচিত।

এই বীজ ভিটামিন-বি, আয়রন, ম্যাগনেশিয়াম, জিঙ্ক, প্রোটিন এবং ট্রিপটোফেন অ্যামিনো অ্যাসিডের ভালো উৎস।

ট্রিপটোফেন উদ্বেগ হ্রাসে অবদান রাখে।

এ বীজে উচ্চমাত্রার প্রয়োজনীয় ফ্যাটি অ্যাসিডও থাকে, যা ব্লাড ভেসেলকে সুস্থ রাখে এবং ক্ষতিকর কোলেস্টেরল কমিয়ে ফেলে।

সূর্যমুখী বীজ – সূর্যমুখী বীজে থাকে প্রোটিন, ফাইবার, ভিটামিন-বি ওয়ান এবং ই, ম্যাগনেশিয়াম, সেলেনিয়াম ও কপার।

সূর্যমুখী ফুলের বীজে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন-ই আছে, যা আমাদের ত্বককে সুস্থ রাখে এবং সেল ড্যামেজের হাত থেকে ত্বককে বাঁচায়।

আমাদের শরীরে হরমোনের মাত্রার সমতা বজায় রাখতে ও ইস্ট্রোজেন ও প্রোজেস্ট্রেরন নিয়ন্ত্রণে রাখে এই বীজ ।

ঠিকমতো হরমোন উৎপাদনেও সাহায্য করে।

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Most Popular

To Top