Mental health মনের যত্ন

অহেতুক টেনশনের শিকার, মুক্তির উপায়

খিটখিটে ব্যবহার

জীবনে চলার পথে নানা ঘাত-প্রতিঘাতের মধ্যে দিয়ে চলতে চলতে আমরা সকলেই কমবেশি টেনশনের মধ্যে পড়ে যাই।

ছোটবেলায় পরীক্ষার টেনশন, বড় হয়ে চাকরি ও সংসারের নানা সমস্যা দুঃশ্চিন্তায় পরিণত হয়।

আর সেই থেকেই মনের মধ্যে জন্ম হয় টেনশনের। আমরা সবাই কম বেশি টেনশনে ভুগে থাকি। তবে অতিরিক্ত টেনশন শরীরের জন্য ক্ষতিকর।

আবার কেউ যদি অকারণে টেনশন করে থাকেন তাদের কিন্তু বিপদের সম্ভাবনা বেশি থাকে। এই উদ্বেগের আড়ালে আপনার শরীরে জাঁকিয়ে বসতে পারে অসুখ।

কারণ এই অযথা  টেনশন বাড়িয়ে দেয় স্ট্রেসের মাত্রা।

তার থেকেই হার্ট, লিভার, কিডনির অসুখ বাসা বাঁধতে পারে শরীরে।

এছাড়াও টেনশনের ফলে মনের শান্তি বিঘ্নিত হয়, খিদে কমে যায়, ঘুমের ব্যাঘাত ঘটায়।

আমরা দুশ্চিন্তার কাছে নিজেকে সমর্পণ করে দিয়ে ক্রমশ টেনশনের শিকার হয়ে পড়ি ।

যা আমাদের অন্ধকারের দিকে ঠেলে দেয় ৷

সুতরাং টেনশনের থেকে আমরা কীভাবে মুক্তি পেতে পারি, জেনে নেওয়া যাক কয়েকটি কার্যকরী উপায়

১. গভীর শ্বাস টেনে নেওয়ার পাশাপাশি মেডিটেশন করুন। এতে মস্তিষ্কে প্রায় ঘুমের সমপর্যায়ের অবস্থা তৈরি হবে।

শূন্যে মনোনিবেশ করলে চাপ কমে যায়। মেডিটেশন বা যোগব্যায়াম শরীর এবং মন উভয়ের জন্যই ভালো।

মানুষের অগোছালো চিন্তাভাবনাকে সুন্দরভাবে গুছিয়ে তোলে মেডিটেশন ।

২. নিজের টেনশনের কথা প্রিয় বা বিশ্বাসভাজন ব্যক্তির কাছে প্রকাশ করুন, দেখবেন টেনশন হালকা হচ্ছে।

এছাড়া প্রয়োজনবোধে তার সৎ পরামর্শ নিয়ে কাজের জন্য উৎসাহ-উদ্দীপনা ও যৌক্তিকতা খোঁজার চেষ্টা করুন।

এতে দুশ্চিন্তার নিরসন হতে পারে।

কোনও টেনশনের মধ্যে থাকলে, বন্ধুদের সঙ্গে নানা বিষয়ে আলোচনা করা এবং তাদের সঙ্গে সমস্যা ভাগ করে নিলে অনেকটা হালকা বোধ করবেন।

৩. মনের মধ্যে টেনশন থাকলে ম্যাসাজ ভালো কাজ দেয়।

যদি সময় থাকে তবে ছোট্ট করে একটা ম্যাসাজ করিয়ে নিন। এতে পেশি শিথিল হবে এবং টেনশন কমবে।

সময় না থাকলে নিজেই ঘাড়ে, কাঁধে, কানের পিছনে হালকা আঙুলের চাপে ম্যাসাজ করতে থাকুন।

৪. শরীরে অক্সিজেনের অভাবে পেশি শক্ত হয়ে গেলে টেনশন বেশি হয়।

তাই হালকা স্ট্রেচিং এক্সারসাইজ করুন যাতে পেশি শিথিল, সচল হয়। শরীরে অক্সিজেনের পরিমাণ বাড়ে, রক্ত চলাচল ভাল হয়।

 

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Most Popular

To Top