Lifestyle - লাইফস্টাইল

বাড়িতেই নিন নখের যত্ন

অনন্যা গৃহবধূ ।  সংসারের সাত-সতেরো কাজের ফাঁকে রূপচর্চা করার সময় খুব কম । যদিও  সেই সময়টুকু মুখ, হাত-পা-এর পরিচর্যা করতেই সময় পেরিয়ে যায় ।  আলাদা করে পেডিকিওর বা মেনিকিওর করার ফুরসত কোথায় । অথচ সংসারের কাজ করতে করতে হাত ও নখের অবস্থা বেহাল  হয়ে পড়ে । বিশেষ করে সবজি কাটলে ও রান্না করলে  হাতের তালুর সঙ্গে সঙ্গে নখের সৌন্দর্যহানি ঘটতেই পারে । সেই সমস্যার সমাধান কিন্তু হাতের কাছেই আছে ।  রান্নাঘরের কয়েকটি জিনিসেই ভালভাবে হতে পারে নখের পরিচর্যা ।

দেহ ছাড়াও নখের পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার দিকে আমাদের খেয়াল রাখা অত্যন্ত জরুরি ।  নখের সুস্থতার মূল শর্তই হল পরিষ্কার রাখা । দৈনন্দিন কাজের জন্য নখের নিচে সহজেই ময়লা জমে যায়, অসাবধানতায় যার কারণে হতে পারে পেটের অসুখও । সুস্থ-সুন্দর থাকতে তাই পরিচ্ছন্নতার কোনও বিকল্প নেই । আর নিয়মিত নখ কেটে ঠিকঠাক মাপে ও আকৃতিতে রাখতে হবে । নখের ওপরের দিক, ভেতরের দিক পরিষ্কার রাখতে হবে ।

যদিও নখের পরিচর্যা করার কাজটা খুব কঠিন নয় । বাড়ি বসেই সামান্য কয়েকটা উপকরণের মাধ্যমে নখ হয়ে উঠতে পারে সুন্দর ও ঝকঝকে ।  হাতে কয়েকটা মিনিট রাখলেই হল । তা হলেই মুক্তি পাওয়া যায় নখ ভাঙা বা হঠাৎ খসখসে হয়ে যাওয়ার সমস্যা থেকে । বারবার নেলপালিশ পরলে বা তুললেও নখ হলদেটে হয়ে যাওয়ার সমস্যা দেখা দেয় । সেই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতেও চাই কিছু ব্যবস্থা ।

কী কী জিনিস দিয়ে করবেন পরিচর্যা ?

১. নখের ময়লা তুলতে হালকা গরম জল নিয়ে তাতে মৃদু শ্যাম্পু মিশিয়ে নিয়ে ১০ মিনিট হাত ডুবিয়ে বসে থাকতে হবে । তারপর নরম কোনও ব্রাশের সাহায্যে নখের চারপাশ ঘষে ময়লা তুলতে হবে ।  ভাল করে হাত ধুয়ে পেট্রোলিয়াম জেল বা অ্যালোভেরা জেল মেখে নিন ।  জেল দিয়ে নখের ওপরে ভাল করে ম্যাসাজ করতে হবে ।

২. নারকেল তেল নখের পক্ষে বেশ উপকারী । তেলতেলে হোক বা শুষ্ক, নারকেল তেলের ব্যবহার করতে পারেন সকলেই । নখের উপরে এবং চারপাশে ভালভাবে দিয়ে দিন নারকেল তেল । তারপরে আলাদা আলাদা করে প্রতিটি আঙুলে কিছুক্ষণ মালিশ করুন । নখ ও তার পাশের অংশ মোলায়েম হবে ।  ফ্যাকাশে নখে ঔজ্জ্বল্য ফিরে আসবে ।

৩. রান্নাঘরে কাজ করার সময় হাত ও নখে নানান ধরনের সবজির কষ বা দাগ লেগে যেতে পারে । এরকম দাগ লাগলে টম্যাটো কিংবা লেবুর টুকরো ঘষে নখ পরিষ্কার করে নেওয়া ভাল ।

৪. নখে ময়লা জমলে সংক্রমণ হতে পারে । সেই সংক্রমণ হলে রসুন বেশ কার্যকরী।  রসুনে ব্যাকটেরিয়া নিধনের ক্ষমতা রয়েছে যথেষ্ট । দু’কোয়া রসুন বেটে নিয়ে প্রতিটি আঙুলের নখের উপরে লাগান । কিছুক্ষণ লাগিয়ে রাখুন, সংক্রমণ কমে যাবে ।

৫. নখ ও আঙুলের চারপাশ, নখের খাঁজ কিংবা আঙুলের ভাঁজে জল লাগানোর পর অবশ্যই ভালভাবে মুছে শুকিয়ে নিন । দীর্ঘ সময় ভেজা অবস্থায় থাকলে নখে ছত্রাকের সংক্রমণ হতে পারে ।

৬. খুব বড় নখ রাখলে ভেঙে গিয়ে বিপাকে পড়তে হতে পারে, তাই এমনটা না রাখাই ভাল ।

 

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Most Popular

To Top