Physical Health - শরীর স্বাস্থ্য

লজ্জা নয়, সচেতন হোন স্তন ক্যানসার (Breast Cancer) নিয়ে

কলেজে তৃতীয় বর্ষে পড়ছে তৃষিতা । স্নান করার সময় হঠাৎ ও বুঝতে পারে স্তনের কাছে ছোট উঁচু মতো কিছু । প্রথমটায় পাত্তাই দেয়নি সে । কিন্তু স্তন ক্যানসার ((Breast Cancer) দিবসে কলেজে একটা সেমিনারে অংশ নেওয়ার পর থেকেই ওর খটকা লাগতে শুরু করেছে । কিন্তু এরকম একটা জায়গা, মুখ ফুটে মাকেই বলতে পারছে না, ডাক্তারের কাছে যাবে কী করে ?

৫৭ বছরের তন্ময় । প্রথমে স্তনের নিপলটা একটু অন্যরকম হয়ে যায় । তারপর একটা কিছু শক্ত উঁচু মতো ফিল হয় । প্রথমটায় গুরুত্ব না দিলেও, পরে স্ত্রীর চাপে চিকিৎসকের কাছে যেতেই, তাঁর ধরা পড়ে স্তন ক্যানসার (Breast Cancer) । যদিও পুরুষের ব্রেস্ট ক্যানসার (Breast Cancer) হওয়ার ঘটনা মহিলাদের তুলনায় অনেকটাই কম ।

ক্যানসার । বয়স বিচার করে না । শুধু শরীরে ছড়িয়ে পড়ে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেয় । ইদানীং বহু আধুনিক চিকিৎসা মিলছে । তাও একেবারে শেষ ধাপে ধরা পড়লে করার কিছুই থাকে না । এই ক্যানসারের মধ্যে মেয়েদের যেটা বিশেষভাবে লক্ষ্য করা যায়, সেটা Breast Cancer বা স্তন ক্যানসার । কম হলেও, স্তন ক্যানসার Breast Cancer পুরুষদেরও হয়, যেটা অনেকেই জানেন না ।

বিপদ

ক্যানসার সময়ে ধরা পড়লে চিকিৎসায় এখন প্রায় নির্মূল হওয়া সম্ভব । কিন্তু সময়ে ধরা পড়ার জন্য চাই সচেতনতা । সেটাই তো অনেকে নন । তার ওপর স্তনের মতো গোপন অঙ্গ । কিছু বদল বুঝলেও, লজ্জা পেরিয়ে চট করে চিকিৎসকের কাছে যাওয়ার কথা ভাবতেই পারেন না অনেক অল্পবয়সী মেয়ে বা মহিলাও । এমনকী মুখ ফুটে বলতে পর্যন্ত চান না ।

সতর্ক হোন

নারী-পুরুষ নির্বিশেষ স্তন ও সংলগ্ন জায়গায় ব্যথাহীন ফোলাভাব, স্তনবৃন্ত কুঁচকে যাওয়া বা রং বদল, স্তনবৃন্ত থেকে কোনও ডিসচার্জ ইত্যাদিতে লক্ষ্য রাখুন

বয়স

মধ্যবয়স্ক মহিলাদের মধ্যেই স্তন ক্যানসার বেশি দেখা যায় । তবে অল্পবয়েসীদের মধ্যেও ইদানীং স্তন ক্যানসার বাড়ছে । গবেষণায় দেখা গিয়েছে, সাধারণত পঞ্চাশোর্ধ্ব পুরুষদেরই স্তন ক্যানসারে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি । স্তন ক্যানসারের ঝুঁকি কমাতে নিয়মিত ব্রেস্ট-স্ক্রিনিং ( breast screening) জরুরি ।

স্তন ক্যানসারের (Breast Cancer) কারণ

স্তন ক্যানসারের কারণ এখনও স্পষ্ট নয় । তবে অনিয়ন্ত্রিত জীবনযাপন, ধূমপান,মদ্যপানে ক্যানসারের ঝুঁকি বাড়ে । যদিও নিশ্চিতভাবে কোনও একটি কারণকে দায়ী করা যায় না ।

কী করণীয়

১৮ বছরের পর থেকেই মেয়েদের নিজেদের স্তন নিয়মিত পরীক্ষা করা উচিত । কোনও অস্বাভাবিকত্ব রয়েছে কিনা খেয়াল করতে হবে । ৩০-এর পর থেকে মহিলাদের আরও সতর্ক হওয়া দরকার । পুরুষরাও একইভাবে স্ক্রিনিং করবেন । তবে পুরুষদের ক্ষেত্রে সমস্যা সাধারণত ৫০-এর পর দেখা যায় ।

কোনগুলো করবেন না

বেহিসেবি জীবনযাপন, অতিরিক্ত ধূমপান ও মদ্যপান বর্জন করতে হবে । কথায় কথায় নানা ধরনের ওষুধ ডাক্তারের পরামর্শ ছাড়া খাবেন না । সদ্য মা হওয়া মহিলারা শিশুকে অবশ্যই ছ’মাস স্তন্যপান করাবেন । এতে স্তন ক্যানসারের প্রবণতা কমে ।

চিকিৎসা – মেডিসিন, অপারেশন, কেমোথেরাপিসহ একাধিক উন্নত চিকিৎসা এখন হচ্ছে ।

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Most Popular

To Top