Mental health মনের যত্ন

অত্যাধিক মানসিক চাপ, তাজা ফুলে সাজান ঘর

দিনের পর দিন কাজের চাপে প্রাণ হাঁফিয়ে উঠছে, কিংবা অতিরিক্ত পরিশ্রমে শরীরে বেদনা !  এসবই কিন্তু  একটা উপায়ে দুর করা সম্ভব । ফুল তো সুন্দরই, অন্যকে সুন্দর করে তুলতেও ফুলের জুড়ি নেই ।  দিনভর কাজের পরে যদি মানসিক চাপ কিংবা শারীরিক কোনও অসুস্থতা দেখা দেয়, তা খানিকটা কমতে পারে ঘরে সুন্দর ফুল সাজানো থাকলে ।  দিনশেষে ক্লান্ত হয়ে যখন ঘরে ফেরেন, নিজের ঘরের সুন্দর আবহ মুছে দিতে পারে সব ক্লান্তি । কারণ শরীর ক্লান্ত থাকলে সেই ছাপ গিয়ে পড়তে পারে আপনার মানসিক স্বাস্থ্যেও ।

আবার মন বিক্ষিপ্ত থাকলে শরীরও বিদ্রোহ করে ওঠে অনেকসময় । আপনার পরিপাটি গোছানো ঘরটি আরও মোহময়ী হয়ে উঠবে যদি তাকে রঙিন বা আপনার পছন্দের ফুল দিয়ে সাজিয়ে তোলেন । দিনের শেষে যখন বাড়ি ফিরে দেখবেন তাজা ফুল ঘরের সৌন্দর্য বাড়িয়েছে তখন আপনার মন ফুরফুরে হয়ে উঠবে । কারণ আমেরিকান সোসাইটি ফর হর্টিকালচারাল সায়েন্সেস-এর একটি গবেষণাপত্রে প্রকাশিত হয়েছে, শরীরের উপরেও অনেক ভাবে ছাপ ফেলে বাড়ির অন্দরসজ্জা । এমনকি সেই গবেষণাপত্রে এটাও জানানো হয়েছে যে, ফুল দিয়ে ঘর সাজিয়ে রাখলে তা রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে । শরীরের কোনও অংশে ব্যথা থাকলে, তাও কমাতে সাহায্য করে তাজা ফুল । এর পাশাপাশি, উদ্বেগ বা ক্লান্তির মতো সমস্যা থাকলেও তা কমাতে পারে ফুল ।

আপনার ঘরে প্রবেশের দরজাটিতে কিংবা তার পাশের দেয়ালে ঝুলিয়ে রাখা মাটির বা কাঠের ফুলদানিতে রাখতে পারেন পছন্দের তাজা ফুল । এই জায়গায় গোলাপ, রজনীগন্ধা, গ্ল্যাডিওলাস রাখলে ভাল দেখায় ।

ড্রইংরুমের কোণায় টেরাকোটা কিংবা সিরামিকের লম্বা গোছের ফুলদানিতে গ্ল্যাডিওলাস বা রজনীগন্ধা রাখতে পারেন । বসবার ঘরের সেন্টার টেবিলে  ক্রিস্টাল বা কাচের বোল নিয়ে তাতে জল দিয়ে উজ্জ্বল রঙের জারবেরা, বেল, জুঁইয়ের মতো সুগন্ধি ফুল ভাসিয়ে রেখে দিন ।  ফুলের গন্ধে আপনার মন তাজা হতে বাধ্য ।

পছন্দমতো ফুল দিয়ে সাজাতে পারেন শোবার ঘরটিও । ঘরের কোণাটি যদি ফাঁকা হয়, তাহলে পরপর তিনটি মাপের ফুলদানিতে ফুল সাজানো যায় । এ ক্ষেত্রে প্রথমটি সাদা লম্বা ডাঁটার ফুল, দ্বিতীয়টি রঙিন গোলাপ আর শেষটি শুধু পাতা দিয়ে সাজালে শোবার ঘরটি মনোরম হয়ে উঠবে । যদি তিনটি ফুলদানি দিয়ে না-ই সাজান, তবে বেডসাইড কর্নারে রাখতে পারেন গোলাপ কিংবা রজনীগন্ধা । মন ফুরফুরে করে দেবে এই ফুলের আয়োজন ।

বাথরুমে আয়নার সামনে ছোট একটা তোড়ায় ফুল রাখলে ঝরঝরে ভাব বজায় রাখবে । ফুল ছাড়াও রাখতে পারেন মানিপ্ল্যান্ট বা অন্য কোনোও  পাতাবাহারের মতো গাছ । সিরামিক কিংবা ক্রিস্টালের ফুলদানিতে বাথরুমের তাজা ফুল দেখতে যেমন  সুন্দর লাগবে তেমনই বাথরুমের গুমোট ও বদ্ধভাব দূর করতেও সাহায্য করবে ।

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Most Popular

To Top