Mental health মনের যত্ন

সন্তানকে অহংকার থেকে দূরে রাখুন, এই কয়েকটি বিষয় মেনে চলুন

সন্তানকে ভালো ব্যবহারের শিক্ষাও মা-বাবাকেই দিতে হবে। কোনও ভুল করে থাকলে তা স্বীকার করতে শেখান। এর ফলে তারা মিথ্যা কথা বলা ও নিজের ভুল অন্যের ওপর আরোপ করার অভ্যাসও ত্যাগ করবে। সন্তানকে ভুল স্বীকার করতে এবং ক্ষমা চাইতে শেখান। এটি তাদের স্বভাবকে নমনীয় করবে।সন্তানকে বিনম্র করে তোলার ক্ষেত্রে অভিভাবকদের সাহায্য করবে।

নিজের মধ্যে পরিবর্তন আনুন

মা-বাবার দেখাদেখি বাচ্চারা অনেক কিছু শিখে থাকে। তারা যদি মা-বাবাকে কারও সঙ্গে কঠোর ভাবে কথা বলতে দেখে, তা হলে তারা নিজের অজান্তেই সেই ব্যবহারে অভ্যস্ত হয়ে পড়বে। তাই এ ক্ষেত্রে সর্বপ্রথম অভিভাবকদের মধ্যে পরিবর্তন আনা জরুরি। প্রথমে নিজের নম্র আচরণ করুন। ধৈর্য ধরতে শিখুন। আপনাদের দেখাদেখি সন্তানও তাই করবে।

সন্তানকে সাহায্য করতে শেখান

এখন প্রত্যেকে নিজের নিজের জীবনে ব্যস্ত। অন্যের সাহায্য করার প্রবণতা অনেকের মধ্যেই কমে গিয়েছে। তাই নিজের সন্তানকে অন্যের সাহায্য করতে শেখান। এর ফলে তাদের মনে বিনম্রতার সঞ্চার হবে। অন্যের সাহায্য করলে মানসিক শান্তি লাভ করা যায়। তাদের এই স্বভাব ভবিষ্যতে সাহায্য করবে।

অহংকার দূর করুন

অহংকারের মনোভব বাচ্চাদের মানসিকতার জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর। অহংকারের ফলে তাদের মনে নেতিবাচক চিন্তাভাবনা আসে। তাই বাচ্চাদের মনে অহংকার জন্মাতে দেবেন না। আবার সন্তানের মনে অহংকার থাকলে তাকে অন্যের সঙ্গে মেলামেশা করতে শেখান। এর ফলে বন্ধুত্ব গড়ে উঠতে পারবে এবং তারা অন্যকে বোঝার চেষ্টা করবে।

অন্যের প্রশংসা করতে শেখান

নিজের প্রশংসা শুনতে কে না ভালোবাসে। আপনার সন্তানও নিজের প্রশংসা শুনে গর্ববোধ করে। কিন্তু এর পাশাপাশি অন্যের প্রশংসা করাও জরুরি। এর ফলে আপনার সন্তানের প্রতি সকলের আকর্ষণ বাড়বে। এমনকি সন্তানের মনে বিনম্রতারও সঞ্চার হবে।

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Most Popular

To Top