Lifestyle - লাইফস্টাইল

কলা দিয়ে এবার বাড়িয়ে তুলুন চুলের সৌন্দর্য

banana

কলা শরীরের জন্য খুবই উপকারী। কলার মধ্যে প্রচুর উপকারী ভিটামিন থাকে। থাকে খনিজ ও ফসফরাস। সেই সঙ্গে হজমের সমস্যায় এবং ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতেও কিন্তু কলার ভূমিকা রয়েছে। এবার অধিকাংশ মানুষের মধ্যেই কিন্তু একটা প্রবণতা থাকে কলা এনে বেশি পাকিয়ে ফেলা। আর তারপর তা ফেলে দেওয়া। কিন্তু জানেন কি এই কলাকেই আপনি দারুণ ভাবে কাজে লাগাতে পারেন? পাকা কলার বড়া যেমন খেতে ভালো লাগে তেমনই রূপচর্চায় কিন্তু কলাকেও সুন্দর করে ব্যবহার করা যায়। কলা দিয়ে অনেকটা ঘরোয়া প্রতিকার সম্ভব। কলা, আর্দ্রতা, অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট এবং ফটোকেমিক্যালস-সমৃদ্ধ তাই ত্বক, শরীর এবং চুলের পুষ্টি প্রদান করার জন্য এটি একটি দুর্দান্ত ঘরোয়া প্রতিকার।

ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে

এক চামচ কমলালেবুর রস, এক চামচ মধু, অর্ধেক কলা ভালো করে চটকে মিশিয়ে নিন। এবার তা মুখে লাগিয়ে রাখুন ১৫ মিনিট। শুকিয়ে গেলে ইষদুষ্ণ জলে মুখ ধুয়ে নিন। ত্বকের কালো দাগ দূর করতে এই প্যাক খুব ভালো কাজ করে।

বলিরেখা দূর করে

হাফ পাকা কলার মিশ্রণ, এক চামচ টকদই, কয়েক ফোঁটা লেবুর রস একসঙ্গে মিশিয়ে নিন। মুখ খুব ভালো করে ধুয়ে এই প্যাক লাগান। এতে কিন্তু অনেক উপকার পাবেন।

ব্রণ সারাতে

একটি পাকা কলা, হাফ চামচ বেকিং সোডা, হাফ চামচ কাঁচা হলুদ মিশিয়ে প্যাক বানান। সপ্তাহে অন্তত তিনদিন মুখে লাগান। ১৫ মিনিট রেখে শুকিয়ে গেলে তারপর ইষদুষ্ণ গরম জল দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন।

অতিরিক্ত তেল নিয়ন্ত্রণের জন্য

অনেকের ত্বক খুব তৈলাক্ত হয়। আর তাই এই অতিরিক্ত তেল নিয়ন্ত্রণের জন্য খুব ভালো কাজ করে কলা। কলা, মধু আর লেবুর রস ত্বকের এই ভারসাম্যতা রক্ষা করে।

ত্বক নিষ্প্রাণ হয়ে গেলে

কলার মধ্যে থাকে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন সি। এবার এই পাকা কলা, লেবুর রস, চন্দন, মুলতানি মাটি একসঙ্গে মিশিয়ে নিয়ে প্যাক বানিয়ে নিন। সপ্তাহে দু থেকে তিনদিন ব্যবহার করুন। নিয়ম করে ব্যবহার করলে ভালো ফল পাবেন। সেই সঙ্গে আর্দ্রতাও বজায় থাকে।

চুলের জন্য

একটা পাকা কলা, ডিমের সাদা অংশ, মধু আর টকদই মিশিয়ে প্যাক বানিয়ে নিন। এবার তা মাথায় লাগিয়ে দু ঘন্টা রাখুন। এবার ভালো করে শ্যাম্পু করে নিন। তাহলে কিন্তু স্পা এর এপেক্ট পাবেন।

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Most Popular

To Top