Uncategorized

মুখে দুর্গন্ধের সমস্যায় ভুগছেন, সমাধান আপনার হাতের নাগালেই

flower

মুখের দুর্গন্ধের কারণে লোকসমাজে লজ্জায় পড়তে হয়। বর্তমানে অনেকেরই এই সমস্যা রয়েছে। প্রতিদিন ২ বার ব্রাস করার পরেও এই সমস্যা পিছু ছারছে না। সাধারণত খাদ্যাভ্যাসে গণ্ডগোল, হজমে সমস্যা, বা লিভারের গোলযোগের কারণে এই সমস্যা দেখা দিতে পারে। বাজারের বিভিন্ন ওষুধ ট্রাই করেও কোনও লাভ হয়নি। তবে চিন্তার কোনও কারণ নেই। সমাধান আপনার হাতের মুঠোয়। চলুন জেনে নেওয়া যাক কীভাবে সহজেই মুখের দুর্গন্ধ দূর করা যায়।

১) জল খান বেশি করে
সারাদিনে পর্যাপ্ত পরিমাণ জল খান। একেবারে নয়, একটু একটু করে বার বার খান। এতে মুখের খাবারের কণা এবং অতিরিক্ত ব্যাকটেরিয়া ধুয়ে যায়। এছাড়াও মুখ শুকনো হয়ে গেলেও মুখে দুর্গন্ধ হয়। তাই বার বার জল খওয়া প্রয়োজন।

২) নারকেল তেল
প্রতিদিন সকালে নারকেল তেল মুখের ভিতরে হালকা হাতে মালিশ করুন। তারপর উষ্ণ গরম জলে মুখ কুলকুচি করে ধুয়ে ফেলুন। নারকেল তেলে থাকা অ্যান্টিইনফ্লেমেটরি উপাদান সহজেই মুখে দুর্গন্ধ সৃষ্টিকারী ব্যাকটেরিয়াদের মেরে ফেলে।

৩) কিছু খাবার এড়িয়ে চলুন
আপনার যদি মুখে দুর্গন্ধ হওয়ার সমস্যা থাকে, তাহলে আপনি কয়েকটি খাবার থেকে দূরে থাকুন। অতিরিক্ত ভাজাভুজি, চিপস বা চিনি যুক্ত স্নাক খাবেন না। এতে সমস্যা উলটে বাড়বে।

৪) পুদিনাপাতা
পুদিনাপাতে প্রাকৃতিক মাউন্ট ফ্রেশনার বলা যেতে পারে। এটি মুখের দুর্গন্ধ দূর করতে খুবই কার্যকরী। তাই মুখে গন্ধ হলে ২-৩ টে পুদিনাপাতা চিবিয়ে ফেলুন। এতে কোনও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াও নেই।

৫) লবঙ্গ
মুখের দুর্গন্ধ দূর করতে লবঙ্গর জুড়ি মেলা ভার। এতে রয়েছে অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল প্রোপাটিজ, যা সহজেই মুখের ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়াকে মেরে ফেলে। তাই মুখের এক কোনায় একটি লবঙ্গ ফেলে রাখুন। উপকার পাবেন।

৬) দারুচিনি
মুখের ভিতরে তৈরি হওয়া জীবাণু মেরে ফেলতে দারুচিনির কোনও বিকল্প নেই। ১ চামচ দারুচিনি পাউডারের সঙ্গে জল মিশিয়ে গরম করে নিন। এবারে মিশ্রণটি ছেঁকে নিয়ে কুলকুচি করুন। নিয়মিত এই অভ্যাস করলে মুখের দুর্গন্ধ থেকে অনেকাংশে মুক্তি মিলবে।

৭) কফি খাওয়া কমান
দিনে অতিরিক্ত কফি খাওয়ার অভ্যাস থাকলে তা পরিবর্তন করুন। কফি জিভের ওপর একটি প্রলেপ ফেলে যা অক্সিজেনের চলাচল বন্ধ করে দেয় এবং ব্যাকটেরিয়ার বৃদ্ধিতে সহায়তা করে।যার ফলে মুখে দুর্গন্ধের সৃষ্টি হয়।

৮) টক দই
গবেষণায় দেখা গেছে মুখের ব্যাকটেরিয়াকে দূর করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। নিয়মিত এক বাটি টক দই খেলে খুব সহজেই মুখের দুর্গন্ধ থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব। এর পাশাপাশি টক দই খাবার হজম করতেও কার্যকরী।

৯) তাজা ফল
নিয়মিত একটি করে কোনও সিজেনের ফল খাওয়া খুবই উপকারী। এতে শরীরে প্রয়োজনীয় পুষ্টির জোগান হয় এবং মুখের দুর্গন্ধও দূর হয়। যে কোনও ফল মুখে স্যালাইভা প্রবাহকে বাড়িয়ে দেয়। এতে মুখের ভেজাভাব বজায় থাকে এবং ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়াও দুর্বল হয়ে পড়ে।

এছাড়াও মাথায় রাখবেন মুখ এবং গলার কিছু রোগের কারণেও মুখে দুর্গন্ধ হওয়ার সমস্যা দেখা দেয়। যেমন মাড়ির রোগ কিংবা টনসিলে পাথর হওয়া। কোনও উপায়েই যদি দুর্গন্ধ দূর না হয়, তাহলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Most Popular

To Top