Lifestyle - লাইফস্টাইল

অতিরিক্ত ঘাম হয়, তাহলে এখনই সতর্ক হওয়া প্রয়োজন, না হলে ঘটতে পারে চরম বিপদ

health

গরমে ঘাম হওয়াটা খুবই স্বাভাবিক ব্যপার। তবে বিনা পরিশ্রমে বা স্বাভাবিক তাপমাত্রায় ঘাম হওয়াটা মোটেও স্বাভাবিক ব্যপার নয়। বরং, চিন্তার কারণ। অনেকে এমন ভাবে ঘামান যেন মনে হয় স্নান করেছেন। কেউ কেউ আবার রাতে ঘুমানোর সময় প্রচুর ঘাম হওয়ার সমস্যায় ভোগেন। আপনারও যদি এরকম সমস্যা থাকে, তা হলে অবহেলা করবেন না। অবিলম্বে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। জেনে নিন অতিরিক্ত ঘাম হওয়া কোন কোন রোগের লক্ষণ হতে পারে। অতিরিক্ত ঘাম হয়, তাহলে এখনই সতর্ক হওয়া প্রয়োজন, না হলে ঘটতে পারে চরম বিপদ।

কী কী সমস্যা দেখা দিতে পারে-

১) হরমোন ডিজঅর্ডার
যারা হরমোনের তারতম্যগত সমস্যায় ভুগছেন, তাদের ক্ষেত্রে রাতে ঘেমে যাওয়ার প্রবণতা বেশি দেখা যায়। এখন থেকে সাবধান না হলেই মুশকিল। এছাড়াও রাতে ঘেমে যাওয়া হাইপারথায়রয়েডিজম সমস্যার কারণেও হতে পারে।

২) ডায়াবেটিস
আচমকা অতিরিক্ত ঘাম হতে শুরু করলে, তা ডায়াবেটিস-এর লক্ষণ হতে পারে। টাইপ ১ এবং টাইপ ২ উভয় ধরণের ডায়াবেটিসের ক্ষেত্রেই ঘাম হওয়ার লক্ষণ প্রকাশ পায়।

৩) লো ব্লাড সুগার
যখন রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা স্বাভাবিকের থেকে অনেক কমে যায়, তখন ঘাম হওয়ার প্রবণতা লক্ষ্য করা যায়। আবার রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে সমস্যা হলেও এমনটা দেখা যায়। তাই অতিরিক্ত ঘাম হলে সতর্ক হন। আপনার লো ব্লাড সুগার-এর সমস্যা থাকতে পারে।

৪) ক্যান্সার
কিছু ধরণের ক্যান্সারের কারণে রাতে অতিরিক্ত ঘেমে যাওয়ার সমস্যা দেখা দেয়। যেমন লিম্ফোমা ধরণের ক্যান্সারের ক্ষেত্রে এই সমস্যা বেশি দেখা যায়। এর পাশাপাশি জ্বর ও অতিরিক্ত ওজন কমে যাওয়ার সমস্যাও দেখা যায়। তাই অতিরিক্ত ঘামের সঙ্গে জ্বর দেখা দিলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

৫) হার্ট অ্যাটাক
যদি কেউ কোন কারণ ছাড়াই হঠাৎ করে ঘামতে শুরু করে, তবে সর্ব প্রথম আমাদের মাথায় কার্ডিয়াক অ্যাটাক-এর চিন্তা আসে। বিশেষ করে ৪০ এর উপর যাদের বয়স, তাদের ক্ষেত্রে এই আশঙ্কা প্রবল। তাই একে অবহেলা করা ঠিক নয়। পাশাপাশি উচ্চ রক্তচাপ, ধূমপানের অভ্যাস কিংবা পরিবারে হৃদরোগের ইতিহাস থাকলে সতর্ক হন। অতিরিক্ত ঘাম হলেই যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ডাক্তার দেখান।

৬) সংক্রমণ
ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণের ক্ষেত্রে জ্বর, ঠাণ্ডা লাগার পাশাপাশি অতিরিক্ত ঘামের সমস্যাও লক্ষ্য করা যায়। সময়মতো চিকিৎসা না করলে বিপদ অবধারিত। তাই অতিরিক্ত ঘাম হলে সংক্রমণের চিন্তা মাথায় রেখে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Most Popular

To Top