Physical Health - শরীর স্বাস্থ্য

দ্বিতীয় সন্তান নেওয়ার আগে জানুন কয়েকটি গুরুপূর্ণ বিষয়

দ্বিতীয় সন্তান নেওয়ার আগে জানুন কয়েকটি গুরুপূর্ণ বিষয়

আরেকটা বাচ্চা নেওয়ার ক্ষেত্রে প্রত্যেক মাকে তার শারীরিক বিষয়টির ব্যাপারে খেয়াল রাখা খুব জরুরী। প্রথম সন্তান জন্মের কতদিন পর দ্বিতীয় সন্তান নেবেন তার জন্য স্বামী-স্ত্রী দুইজনকেই কিছু বিষয়ের প্রতি লক্ষ্য রাখা আবশ্যক।
প্রথম সন্তান জন্মের ৬ মাসের মধ্যে দ্বিতীয় সন্তান গর্ভে আসলে যে সব সমস্যা হতে পারে:

নির্দিষ্ট সময়ের পূর্বেই সন্তান প্রসব
সন্তানের কম ওজনের হওয়া
আকারে ছোট হওয়া
অপুষ্টিতে ভোগা
তবে ৭ থেকে ১৭ মাসের ব্যবধানে দ্বিতীয় সন্তান জন্ম নিলে বাচ্চাদের মাঝে এসব সমস্যার আশঙ্কা কমে যায়।

দ্বিতীয় সন্তান নেওয়ার আগে মাকে যেসব শারীরিক বিষয়ের প্রতি লক্ষ্য রাখতে হয়:

প্রথম সন্তান প্রসবের পর মায়ের শরীর পূর্বের অবস্থায় ফিরে আসার জন্য কিছু সময়ের প্রয়োজন হয়।

বিশেষজ্ঞ চিকৎসকদের মতে, প্রথম ও দ্বিতীয় সন্তান নেওয়ার মাঝে অন্তত ১৮ মাসের ব্যবধান থাকলে প্রসূতি মা পূর্বের অবস্থায় ফিরে আসতে যথেষ্ট সময় পান।

অধিকাংশ নারী কম বেশি রক্তশূণ্যতা এবং অপুষ্টিজনিত সমস্যায় ভোগেন। সেসব মহিলাদের ক্ষেত্রে প্রথম ও দ্বিতীয় সন্তান নেওয়ার মাঝে অন্তত ২ বছর বিরতি থাকা প্রয়োজন।

একটি সন্তান জন্মের পরপরই দ্বিতীয় সন্তান গর্ভে ধারণ করলে শরীরের প্রয়োজনীয় লৌহ, ক্যালশিয়াম এবং ভিটামিন-এর অভাব পূরণ করা নারীর শরীরের পক্ষে কঠিন হয়ে যায়। ফলে দ্বিতীয় সন্তানটি নানারকম সমস্যা নিয়ে জন্ম নেয়। তাই মায়ের শারীরিক সক্ষমতা বিবেচনা করে দ্বিতীয় সন্তান নেওয়ার বিষয়ে মাকে সিদ্ধান্ত নিতে হবে।

সর্বশেষে গর্ভাবস্থায় আপনি কি অনেক দূর্বল আর ক্লান্ত বোধ করতেন? আপনি কি নিশ্চিত যে, আপনি শারীরিক ও মানসিকভাবে আরেকবার গর্ভধারণ করতে প্রস্তুত? কারণ আপনার গর্ভে বাড়তে থাকা সন্তানের পাশাপাশি আপনাকে কিন্তু আরেকটি বাচ্চার দেখাশোনার কাজটিও করতে হবে।

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Most Popular

To Top