টিকা নিলেই করোনা হবে না, ভ্রান্ত ধারনা ভাঙা প্রয়োজন

টিকা নিলেই করোনা হবে না, এমন নয়। বরং টিকা নেওয়ার পরও করোনা হচ্ছে। আর এখানেই খারাপ খবর শুনিয়েছে একটি গবেষণা। তাঁদের গবেষণায় উঠে এসেছে, টিকা নেওয়ার পরও ঠান্ডালাগার লক্ষণ থাকা প্রতি ৩ জনের মধ্যে ১ জনের করোনা থাকতে পারে।

লন্ডনের কিংস কলেজের অধ্যাপক টিম স্পেকটর এই বিষয়ে বলেন, নাক দিয়ে জল গড়ানো, গলা ব্যথার মতো লক্ষণ থাকলে অবশ্যই নিজেকে আইসোলেশনে রাখতে হবে। তারপর করতে হবে করোনা টেস্ট। সেই রিপোর্ট নেগেটিভ আসলেই সাহস করে আবার বাইরে বেরন। তিনি আরও বলেন, স্বাদ-গন্ধ চলে যাওয়া, জ্বর আসার মতো লক্ষণের অপেক্ষা করবেন না। এই উপসর্গ প্রথম অবস্থায় বা সবসময় নাও দেখা যেতে পারে।

টিম স্পেকটরের কথায়, ঠান্ডা লাগার মতো লক্ষণ দেখা দিলেই সতর্ক হয়ে যেতে হবে। সেই মানুষটার টেস্ট করা বাঞ্ছনীয়। তবে তিনি মানুষের মধ্যে ফুটে ওঠা ভয়ঙ্কর প্রবণতার কথাও তুলে ধরেন। তিনি বলেন, এখন বহু মানুষই লক্ষণ থাকার পরও টেস্ট করান না। তারপর যাচ্ছেন পার্টিতে। এরফলে ওমিক্রনের মতো নতুন চরিত্রের করোনার সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়া সহজ হবে। আমরা খুব সহজেই ফের ছড়িয়ে দেব করোনা।

তিনি সতর্ক করে বলেন, একজন সংক্রমিত মানুষ হয়তো ভাবছেন তার সামান্য ঠান্ডা লাগার সমস্যা হয়েছে। তবে অনেক ক্ষেত্রেই তিনি হয়তো ছড়িয়ে দিচ্ছেন ডেল্টা বা ওমিক্রন। তাই ঠান্ডা লাগার মতো কোনও উপসর্গ দেখা দিলেই সাবধান থাকার কথা বলছেন তিনি।

সামনের উৎসবের মরশুমে তাঁর পরামর্শ, কারও শরীর খারাপ লাগলে, ঠান্ডা লাগলে ক্রিসমাস পার্টি বা অফিসে গিয়ে অন্যদের মধ্যে ভাইরাসকে ছড়িয়ে দেবেন না। বরং আলাদা থাকুন। ভালো থাকবেন।

এই গবেষণা সামনে আশার পর আমাদের এখানকার বিশেষজ্ঞরাও একই পরামর্শ দিচ্ছেন। তাঁদের কথায়, আমরা চাই মানুষ আরও সতর্ক হন। দুটি টিকা নেওয়া হয়েছে মানেই সব সমস্যা শেষ নয়। দুটি টিকা নেওয়ার পরও মানুষের করোনা হচ্ছে। তিনি করোনা ছড়াচ্ছেনও। তাই মানুষকে আরও সচেতন থাকতে হবে। উপসর্গ দেখা দিলে করতে হবে টেস্ট। আর মাস্ক, স্যানিটাইজার, সাবান দিয়ে হাত ধোয়ার অভ্যাসও চালিয়ে যেতে হবে। নইলে আবার ভয়ঙ্কর বিপদের মধ্যে পড়তে পারি আমরা।

To Top